Navigation


পরীক্ষা পদ্ধতিঃ

প্রতিটি শ্রেণীতে পরীক্ষা পদ্ধতিকে প্রধানত ২(দুই) টি ভাগে ভাগ করা হয়।

  1. ধারাবাহিক মূল্যায়ণ পদ্ধতি।
  2. চুড়ান্ত মূল্যায়ণ পদ্ধতি।

ধারাবাহিক মূল্যায়ণ পদ্ধতিঃ

তাত্ত্বিক বিষয়ে নির্ধারিত মোট নম্বরের ৪০% নম্বর ধারাবাহিক মূল্যায়ণের জন্য নির্ধারিত

তাত্ত্বিক অংশের নির্ধারিত নম্বরের বিভাজনঃ

বর্ষমধ্য পরীক্ষা ৫০%
ক্লাস টেস্ট ৪টি, কুইজ টেস্ট - ৪টি ও এসাইনমেন্ট - ৪টি ৪০%
উপস্থিতি (৭০% উপরে) ১০%

ব্যবহারিক অংশের নির্ধারিত নম্বরের বিভাজনঃ

ব্যবহারিক ধারাবাহিক অংশের মোট নম্বর অনুষ্ঠিত জবের মধ্যে সমান ভাগ করিয়া দেওয়া হয়।

জব অনুশীলন ০৬
রিপোর্ট প্রদান ০২
পরিচ্ছন্নতা ও নিরাপত্তা অবলম্বন ০২

চুড়ান্ত মূল্যায়ণ

Notices